অরণ্য সাইফুল’র কবিতা

প্রকাশিত: ৯:১৫ অপরাহ্ণ, মে ২৩, ২০২০

অরণ্য সাইফুল’র কবিতা

.

নাক ফুল

.

আমি মায়ের জন্মক্ষয়ের আকাশ

আমার আগমনে যে ধাবিত হচ্ছে মৃত্যুর দিকে।

আমাকে কেউ জিজ্ঞেস করেছিল

‘আচ্ছা আপনার মায়ের হাতের প্রিয় রান্না কি?’

আমি কিঞ্চিৎ হেসে বলেছিলাম

অভাবের সংসারে ভক্ষণ যোগ্য সবই প্রিয়

তবে কাঠালের বিছি দিয়ে কাটাওয়ালা ডাটা শাক খুব প্রিয়

যা আমার মা ছাড়া অন্য কোন নারী রান্না করতে পারবে না।

মায়ের নাকফুলের সাথে

হারিয়ে ফেলেছি সংসার নামক যুগল জীবনের সৌন্দর্য্য

আমার বাবার মৃত্যু কেড়ে নিয়েছিল মায়ের চল্লিশ বছরের নাক ফুল

 

.

ভাততন্ত্র

.

আমার সাথে কথা হচ্ছিলো
জৈনক বেকার দার্শনিকের
স্রষ্টা সম্পর্কিত তার মতবাদ হচ্ছে
‘পৃথিবীর সর্বত্র যে ক্ষুধা তাকে ঘিরেই আবর্তিত হচ্ছে পৃথিবী,
মুলত আমরা যা খেয়ে বাঁচি তার নামই স্রষ্টা’
আরে ভাই আপনিতো আতেঁল
‘হ্যাঁ তা বলতে পারেন, তবে আমি সব তন্ত্রের উপরই প্রস্রবাক
করি, আমি জানি একমাত্র ক্ষুধাই সকল আবিস্কারের জনক।
আপনি যেমন বলছেন স্রষ্টাই মহান,
আমিও ঠিক বলছি ক্ষুধাই মহান’
বলেন কি ভাই!
‘জ্বী ক্ষুধা এবং স্রষ্টা এক ঘরেই থাকে’
আমি এখন যাই ভাই আমার ভিষণ ক্ষুধা লেগেছে।
.
অরণ্য সাইফুল
কবি ও সাংবাদিক

Share via
Copy link
Powered by Social Snap